চাঁদপুর, বুধবার ১৩ জানুয়ারি ২০২১, ২৯ পৌষ ১৪২৭, ২৮ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪২
ফনেটিক ইউনিজয়
সার্চ
¦

ব্রেকিং নিউজ

চাঁদপুর সরকারি কলেজে
‘বঙ্গবন্ধুর রাজনীতিতে রবীন্দ্র প্রভাব: একটি পর্যালোচনা’ শীর্ষক ওয়েবিনার সম্পন্ন

স্টাফ রিপোর্টার ॥

প্রকাশ : ১৩ জানুয়ারি, ২০২১

মেঘনাপাড়ের বাতিঘর বলে খ্যাত চাঁদপুর সরকারি কলেজে গতকাল ১২ জানুয়ারি মঙ্গলবার সকাল ১১টায় হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি, স্বাধীনতার মহান স্থপতি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনের অংশ হিসেবে একটি ওয়েবিনার অনুষ্ঠিত হয়। কলেজ অধ্যক্ষ প্রফেসর অসিত বরণ দাশের সভাপতিত্বে উক্ত সেমিনারে প্রধান অতিথি ছিলেন মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক প্রফেসর ড. সৈয়দ মো. গোলাম ফারুক। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বাংলা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ও শিক্ষক পরিষদের যুগ্ম-সম্পাদক মো. সাইদুজ্জামান। বিশেষ অতিথি ছিলেন মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড ঢাকা-এর চেয়ারম্যান প্রফেসর নেহাল আহমেদ, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড কুমিল্লা এর চেয়ারম্যান প্রফেসর মো. আবদুস ছালাম, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের পরিচালক (কলেজ ও প্রশাসন) প্রফেসর মো. শাহেদুল খবির চৌধুরী,  মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের পরিচালক (মাধ্যমিক) প্রফেসর মো. বেলাল হোসাইন, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের পরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) প্রফেসর ড. একিউএম শফিউল আজম, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা কুমিল্লা অঞ্চলের পরিচালক প্রফেসর সোমেশ কর চৌধুরী। ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. সুলতানা তৌফিকা আক্তারের সঞ্চালনায় সেমিনার আলেচনায় অংশগ্রহণ করেন টঙ্গী সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মো. রফিকুল ইসলাম, পুরাণবাজার ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ রতন কুমার মজুমদার।
ওয়েবিনারে গভীর শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করা হয় শতাব্দীর শ্রেষ্ঠ বাঙালি, স্বাধীন বাংলাদেশের স্বপ্নদ্রষ্টা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুনেচ্ছা মুজিবসহ ’৭৫-এর ১৫ আগস্টের সকল শহীদ এবং মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে আত্মদানকারী সকল শহীদকে।
প্রফেসর অসিত বরণ দাশ বলেন, ‘‘বিশ্ব কবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ছিলেন সার্বজনীন, তিনি সারা বিশ্বের কবি। সাহিত্যের এমন কোন জায়গা নেই যেখানে রবীন্দ্রনাথের বিচরণ নেই। ঠিক তদ্রুপ জাতির পিতা শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্ব ছিল আন্তর্জাতিক মানের। তাঁর অসাধারণ প্রতিবাদী, অহিংস আন্দোলনের রূপটি এসেছে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ক্ষেত্র বিশেষে মাহাত্মা গান্ধীর কাছ থেকে।’’
প্রফেসর নেহাল আহমেদ বলেন, ‘‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর দুজনই ছিলেন পশ্চিম পাকিস্তানীদের কাছে নিষিদ্ধ ব্যক্তি। একজনের সাহিত্য কর্মের উপর আঘাত করেছে এবং আরেকজনের প্রতিবাদী কন্ঠস্বরকে বারবার রুদ্ধ করা হয়েছে। বঙ্গবন্ধু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের সোনার বাংলা থেকেই এ দেশটাকে সোনার বাংলা এবং দেশের মানুষকে ভালবেসে সোনার মানুষ হিসেবে তুলনা করেছেন।’’
প্রধান অতিথি মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক প্রফেসর ড. সৈয়দ মো. গোলাম ফারুক বলেন, করোনকালীন সময়ে চাঁদপুর সরকারি কলেজ যে কার্যক্রম চালিয়েছে তা সত্যিই প্রশংসনীয়। বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক জীবনে রবীন্দ্রনাথ গভীরভাবে জড়িয়ে আছেন। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ছিলেন বিশ্বকবি এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ছিলেন বিশ্ব রাজনীতির কবি। বঙ্গবন্ধুর জীবনে রবীন্দ্রনাথ কিভাবে আসন গেড়েছেন আজকের ওয়েবিনারে তা উঠে এসেছে। বঙ্গবন্ধুর মত এ রকম একজন সৃজনশীল রাজনৈতিক স্বপ্নদ্রষ্টা ইতিহাসে বিরল।’’
অধ্যক্ষ প্রফেসর অসিত বরণ দাশ ওয়েবিনার আয়োজনে যুক্ত সংশ্লিষ্ট সকলকে এবং অনলাইনে সংযুক্ত সকল অতিথিকে ধন্যবাদ জানান। বিশেষ করে শত ব্যস্ততার মধ্যেও মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক প্রফেসর ড. সৈয়দ মো. গোলাম ফারুক এবং মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ড ঢাকা এর চেয়ারম্যান প্রফেসর নেহাল আহমেদ অনলাইনে সংযুক্ত থেকে এই আয়োজনকে সার্থক করে তুলেছে বলে তিনি তাদের প্রতি কৃজ্ঞতা প্রকাশ করেন। 
 
চাঁদপুর সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মো. মাসুদুর রহমান, বিভিন্ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধানগণ, শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক ও ব্যবস্থাপনা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক কিউ এম হাসান শাহরিয়ার, শিক্ষকবৃন্দ এবং শিক্ষার্থীরা ওয়েবিনারে অংশগ্রহণ করে।
প্রথম পাতা পাতার আরো খবর

উপদেষ্টা মন্ডলীর সভাপতিঃ ডাঃ জে আর ওয়াদুদ টিপু, প্রতিষ্ঠাতা ও প্রকাশকঃ- মোঃ সেলিম খান, ভারপ্রাপ্ত সম্পাদকঃ- শহীদ পাটোয়ারী, যুগ্ম সম্পাদকঃ- জাহিদুল ইসলাম রোমান, ব্যবস্থাপনা পরিচালকঃ- কাজী মিজানুর রহমান, ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ- মোহাম্মদ আলী মাঝি কর্তৃক ১০নং লক্ষ্মীপুর মডেল ইউনিয়ন, চাঁদপুর থেকে প্রকাশিত এবং সিরাজ অফসেট প্রেস, কলেজ গেইট, চাঁদপুর থেকে মুদ্রিত। কার্যালয়ঃ- খান সুপার মার্কেট (২য় তলা), ঘোষপাড়া ব্রীজের পশ্চিমে, মরহুম আব্দুল করিম পাটোয়ারী সড়ক, চাঁদপুর-৩৬০০। মোবাইল- ০১৭১২-২০৫৭৪৭।